ঋতুহীনতায় লেখা কবিতা

May 16, 2018



খন জর্জরিত খরা,
কই এখনওতো তোমার কোনো রোদ এলো না!
মেঘে মেঘে অবিরাম গলনের সুর।

শরৎ এলেই ভাবি সেই মুখ,
হাসছে থেমে থেমে অনবরত, বাঁকানো ঠোঁট
নধর শরীর, অপূর্ব ফসলের ঘ্রাণ,
হাতের ওপর রাখা হাত,
কয়েকটি লকলকে আঙুল, কালচে লাল কারুকার্য্য...

এইভাবে ভেবে ভেবে অনেক রাতের পরে
ঘুম, আহা আমার কতদিনের ঘুম, তার নবান্ন স্বপ্ন;
আয়না থেকে যারা কখনও নামে না
যাদের অবয়ব গড়ে উঠেই মিলিয়ে যায়
তুমি কি জানো তারাও
এইসব উল্লাস ছাড়া আর কিছুই বোঝে না;

অতঃপর অনেক প্রলম্বিত শীত এবং স্বল্পায়ু কিছু বসন্ত
প্রানের মাঝে ছড়ানো তোমার সবুজ
কতদিন যেন এইখানে আর কোন ঋতু আসে না... 

You Might Also Like

0 comments

Popular Posts