বাতাসের আস্তিনে নিখোঁজ হওয়ার ঠিকানা

আমার মনে পড়ে যায় অনেক কাজ বাকি থেকে গেল, অনেক কথা না-বলা থেকে গেল। হয়তো আর কখনোই বলা হবে না, তবু  বলতে ইচ্ছে করে, শুনতে ইচ্ছে করে, লিখতে ইচ্ছে করে সেই শুয়োপোকার গল্প, যার প্রজাপতি হতে ভীষন ভয়। আমি ভুলে যাই আমার অবকাশের  কথা, বুঝতে পারি অবকাশ নেই আমার, অভ্যেসে মিশে গেছিস তুই আমার। তারপর একদিন তুমি জানতে পারবে না বলা গল্পেরা খুঁজে নিয়েছে নতুন মোড়, পেছনে পড়ে রইলো পুরনো ঘরের সেই হাঁসি কান্নারা...একা এবং একা...।।





এখানে নিখোঁজ হতে হবে এটাই কথা, এখানে নিখোঁজ হয়ে যায় জীবনের সবকিছু একদিন সব।
বাতাসের আস্তিনে আগুনের ফুলকিরা যেমন নিখোঁজ একদিন নিজে অথবা
জলের বলিরেখার মত বুদবুদ ঠিকানা বিহীন কি জানি ভেবে!
দেখোনা, আকাশের অবতলে আলোর রেখা ছায়াপ্রায় বৃষ্টিতে ভিজে
যেন নিজেকে নিয়ে যাবে নিমগ্ন বিলুপ্তিতে অবশেষে...
এখানে নিখোঁজ হয়ে যায় জীবনের সবকিছু একদিন সব
তবুও কখনো হারানো বিজ্ঞপ্তির মলীন ফলক দেখি পৃথিবীর কোনায় কোনায় সার বেঁধে অনায়াসে নিয়তি যুঝে।

এখানে কেউ কেউ ভালোবাসে নিখোঁজ হতে,
এখানে কেউ কেউ ভালোবাসে জীবনের ভ্রমে, অথবা
ভুলগুলো ধরে রাখে সুখের মত তারপর
টের পায় একদিন মুঠো খুলে ফিরে গেছে সে নদী কোনখানে
জানা যায়না কিছুতেই।

এখানে নিখোঁজ হতে হবেই এটাই প্রথা,
এখানে নিখোঁজ হয়ে যায় জীবনের সবকিছু
জীবনের না রাখা কথারা...



Powered by Blogger.