কিছুই মনে পড়ছে না


কিছুই তো মনে পড়ছে না।

শুধু মনে পড়ে,
সাদা সাদা ঢেউয়ে সাঁতার কাটছিলো কালো তিন মেয়ে, প্রথম রাতে।
কালো কালো ঢেউয়ে সাঁতার কাটছিলো সাদা তিন মেয়ে, দ্বিতীয় রাতে।
মৎস্য কন্যার খোঁজে কতই না ডুবসাঁতার সারা জীবন।
নীল রঙা বিশাল জলের ভেতর গুটিসুটি মেরে লুকিয়ে ছিলো এক ফোঁটা নরম হলুদ
অন্ধ তীরন্দাজ ছুঁড়েছিলো তীর জলের নাভীতে, কোমল হলুদে।
কাঁপন উঠেছিলো, আড়ালে ছিলো উথালি ঢেউ।
তখন আমি নৌকা ছিলাম, ঢেউয়ে মাতাল সারা বেলা।
রাত হলে জল ডুব ডুব খেলা, জোছনা বা অন্ধকারের সাথে।
জলের ছলাৎ ছলাৎ শব্দের একঘেঁয়েমিতে ঘাই মেরেছিলো বেগুনী বোয়াল।
হু হু করা গভীর কালো রাত একাই গাইতো খেয়াল, করুণ সুরে।
একদিন কাঠের পাটাতনে দেখি চুইয়ে পড়ছে সাদাটে ধূসর কষ
মৃতলোক থেকে আলাপচারিতায় আসা আগন্তুকেরা
জানিয়ে দিলো, মৃত্যুর রং ধূসর।
আমার আর কিছুই মনে পড়ছে না।
Powered by Blogger.